শেখ হাসিনা: “বিএনপিকে শপথ নেয়ার জন্য সরকার কোন চাপ দেয়নি”

Spread the love
শেখ হাসিনা
Image captionশেখ হাসিনা: “শপথ নেয়ার জন্য বিরোধী এমপিদের ওপর সরকারের কোন চাপ নেই”

বাংলাদেশের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বিরোধী দল বিএনপির নির্বাচিত এমপিদের শপথ নেয়ার জন্য সরকারের দিক থেকে কোন ধরণের চাপ দেয়ার কথা অস্বীকার করেছেন।

শুক্রবার ঢাকায় গণভবনে এক সংবাদ সম্মেলনে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে এই বিষয়ে প্রশ্ন করা হলে তিনি বলেন, “আমরা চাপ দিতে যাব কেন? এখানে সরকারের কোন চাপ নেই।”

“তারা জনগনের ভোটে নির্বাচিত এবং তারা নিজেরাই বলেছে যে নিজের কন্সটিউয়েন্সিতে যে জনগণ ভোট দিয়ে নির্বাচিত করেছে তারাই চাপ দিয়েছে। এবং যারা শপথ নিয়েছে তারা বলেছে যে পার্লামেন্টে গিয়ে খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারে কথা বলবে” – বলেন প্রধানমন্ত্রী।

উল্লেখ্য বিএনপি থেকে নির্বাচিত ছয় জনের মধ্যে একজন জাহিদুর রহমান গতকাল দলের সিদ্ধান্ত অমান্য করে এমপি হিসেবে শপথ নিয়েছেন।

বিএনপির মহাসচিব ফখরুল ইসলাম আলমগীর এর আগে আজই ঢাকায় সাংবাদিকদের বলেছিলেন, শপথ নেয়ার জন্য তার দল থেকে নির্বাচিতদের ওপর সরকারের দিক থেকে চাপ আছে।

এ প্রসঙ্গে শেখ হাসিনা আরও বলেন, “যারা শপথ নিয়েছেন তারা স্বেচ্ছায় গিয়ে শপথ নিয়েছেন। এখানে আমাদেরকে দোষ দেয়ার কী আছে? বিএনপি একটা রাজনৈতিক দল। যেটাই তারা করুক, সেটা তাদের রাজনৈতিক সিদ্ধান্ত। একটা দলকে তার সিদ্ধান্ত নিজে নিতে হবে। এখানে অন্য কোন দল তাদের সিদ্ধান্ত চাপিয়ে দিতে পারেনা। দেশে যেহেতু বহুদলীয় গণতন্ত্র আছে, সকলেরই দল করার সুযোগও আছে এবং করে যাচ্ছে।”

খালেদা জিয়া: প্যারোলে মুক্তির প্রশ্নে বিএনপিতে রয়েছে নানা মত
Image captionখালেদা জিয়া: প্যারোলে মুক্তির প্রশ্নে বিএনপিতে রয়েছে নানা মত

গণভবনের সংবাদ সম্মেলনে কারাবন্দী বিরোধী নেত্রী খালেদা জিয়ার মুক্তির ব্যাপারেও প্রধানমন্ত্রীকে প্রশ্ন করা হয়।

একজন জানতে চান, খালেদা জিয়াকে প্যারোলে মুক্তি দেয়ার ব্যাপারে সরকারের খুব আগ্রহ আছে বলে বলা হচ্ছে। আসলেই সরকারের আগ্রহ আছে কিনা?

আরও পড়ুন:

শপথ নিয়ে তিনি দলকে অপমান করেছেন: বিএনপি

সিদ্ধান্ত অমান্য করে শপথ নিলেন বিএনপির জাহিদুর

বিএনপির সিদ্ধান্ত বদলের আশায় নির্বাচিতদের অনেকে

জবাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা বলেন, “প্যারোলে মুক্তির জন্য কিন্তু আবেদন করতে হয়। সাধারণত প্যারোল তখনই পায়, যখন কেউ আবেদন করে। কিন্ত এখানে কেউ আবেদন করেনি এখনো। যেহেতু আবেদন করেনি সেহেতু আমাদের তো এ ব্যাপারে কমেন্ট করার কিছু নেই, বলার কিছু নেই।”

শেখ হাসিনা আরও বলেন, “খালেদা জিয়াকে আমরা রাজনৈতিকভাবে গ্রেফতার করিনি। খালেদা জিয়া তার দুর্নীতির কারণে কোর্টের মাধ্যমে সাজাপ্রাপ্ত। সেই শাস্তি তিনি ভোগ করছেন। আর সে মামলাটাও কিন্তু আওয়ামী লীগ সরকার করেনি। এ মামলাটা করে গিয়েছিল তত্ত্বাবধায়ক সরকার এবং মামলাটা চলেছে ১০ বছর।”

“আমরা কোর্টকে প্রভাবিত করিনা। আদালত শাস্তি দিয়েছে, খালেদা জিয়া সে শাস্তি ভোগ করছেন” – বলেন শেখ হাসিনা।

Farjana Akter

Generations previous to the year 2000 used to reach, exclusively, for travel agencies when wanting to plan a trip. Consequently, travel agents became personal counselors, destined to help customers with their search to build the perfect vacation itinerary.

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *